শুক্রবারের চেয়ারম্যান!

লৌহজংয়ে আইন-শৃঙ্খলা সভা ও এলাকায় থাকেন না বেশির ভাগ জনপ্রতিনিধি
মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলা আইন-শৃঙ্খলার মাসিক সভায় বেশির ভাগ ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যানরা উপস্থিত থাকেন না। এতে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের আইন-শৃঙ্খলা সম্পর্কে কমিটি যথাযথভাবে জানতে পারছে না, জনগণের আকাঙ্ক্ষার প্রতিফলন ঘটছে না। বাস্তবমুখী পদক্ষেপও নেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। গতকাল সোমবার মাসিক আইন-শৃঙ্খলা সভায় ১০টি ইউপির ১০ চেয়ারম্যানের মধ্যে মাত্র একজন উপস্থিত ছিলেন। এ নিয়ে সভায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন কমিটির সদস্যরা।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ধনাঢ্য এই চেয়ারম্যানদের বেশির ভাগই পরিবার নিয়ে ঢাকায় বাস করেন। নির্বাচনের সময় এসে তাঁরা প্রচুর টাকা খরচ করে চেয়ারম্যান হন। কেবল শুক্রবারই তাঁদের ঠিকমতো এলাকায় পাওয়া যায়। এ দিন ঢাকায় তাঁদের ব্যবসাপাতি বন্ধ থাকায় তাঁরা গ্রামে আসেন জনগণের সঙ্গে দেখা করতে।

গতকাল সোমবার মাসিক আইন-শৃঙ্খলা সভায় শুধু কনকসার ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ উপস্থিত ছিলেন। গত এপ্রিল মাসে তিনজন, মার্চে ৪, ফেব্রুয়ারিতে ৬, জানুয়ারিতে ৬, ডিসেম্বরে ৫ ও নভেম্বরে তিনজন উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র মতে, বেশির ভাগ চেয়ারম্যানের ঢাকায় বড় বড় ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান থাকায় তাঁরা ব্যবসা ও পরিবার নিয়ে বেশি ব্যস্ত থাকেন। প্রয়োজনীয় সময়ে জনগণ চেয়ারম্যানদের কাছে না পাওয়ায় তাদের সমস্যাগুলো তাৎক্ষণিক সমাধান হচ্ছে না। অনেকে জরুরি প্রয়োজনে চেয়ারম্যানকে পেতে ঢাকায় ছুটে যান। এতে জনদুর্ভোগ বেড়েই চলেছে। লৌহজং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মনির হোসেন বলেন, ‘সরকারের নির্দেশনা রয়েছে মাসিক সভাগুলোতে চেয়ারম্যানদের উপস্থিত থাকতে হবে। মন্ত্রণালয় থেকে সভার জন্য প্রতি মাসে সুনির্দিষ্ট তারিখ বেঁধে দেওয়া আছে। তার পরও তাঁরা উপস্থিত থাকছেন না। এতে তাঁদের এলাকার উন্নয়নসহ আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সম্পর্কে জানা সম্ভব হচ্ছে না। কর্মকাণ্ড ব্যাহত হচ্ছে। তাঁদের সভায় উপস্থিত থেকে জনগণের ভালো-মন্দের কথা তুলে ধরা উচিত। জেলা প্রশাসক সায়লা ফারজানাকে বিষয়টি জানালে তিনি চেয়ারম্যানদের সভায় উপস্থিত থাকার তাগিদ দিয়েছেন। তার পরও তাঁদের পাওয়া যাচ্ছে না। এখন আমি লিখিতভাবে মন্ত্রণালয়কে বিষয়টি জানাব প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে।’

আইনশৃঙ্খলা সভা

মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার আইন-শৃঙ্খলাবিষয়ক মাসিক সভা গতকাল সোমবার উপজেলা সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মনির হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান মো. ওসমান গণি তালুকদার। এ সময় ভাইস চেয়ারম্যান জাকির হোসেন বেপারী, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) রিনাত ফৌজিয়া, সাংবাদিক মো. মাসুদ খান, লৌহজং থানার ওসি লিয়াকত আলী, কনকসার ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, মনির হোসেন মাস্টার, মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তা সেলিমা খাতুন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

কালের কন্ঠ

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

w

Connecting to %s