PALM8 নেতৃবৃন্দের সংবর্ধনা

PALM8 নেতৃবৃন্দের সম্মানে জাপান পররাষ্ট্রমন্ত্রী এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী কোনো তারো’র দেয়া PALM8 নেতৃবৃন্দের সম্মানে সংবর্ধনা আয়োজনে জাপানকে তুলে ধরা হয়।

১৭ মে ২০১৮ বৃহস্পতিবার অভিজাত হোটেল নিউ ওতানিতে দেয়া সংবর্ধনা ও নৈশ ভোজে PALM8 নেতৃবৃন্দ ছাড়াও কূটনৈতিক কোরের নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত, বিভিন্ন মন্ত্রীবর্গ, উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তাগণ, বিভিন্ন প্রদেশের কর্মকর্তাগণ, জোট সরকারের অন্যতম শরিক দল কোমেইতো পার্টি অফ জাপান এর প্রেসিডেন্ট নাতসুও ইয়ামাগুচিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, দেশি, বিদেশি এবং আন্তর্জাতিক মিডিয়া কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

জাপান প্যাসিফিক আইল্যান্ডসভুক্ত দেশগুলোর সাথে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক দীর্ঘমেয়াদি উন্নয়নে প্রতি ৩ বছর পর সামিট লেবেল মিটিং (Pacific Islands Leaders Meeting, PALM) আয়োজন করে আসছে ১৯৯৭ সাল থেকে। এবারের আয়োজন ছিল ৮ম বারের মতো।

গত ১৮ এবং ১৯ মে দুই দিনব্যাপী সামিট মিটিং এ আয়োজক দেশ হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে। ২০১১ ভূমিকম্প, সুনামি পরবর্তী পারমাণবিক বিপর্যয়ে বিধ্বস্ত ফুকুশিমা প্রদেশের ইওয়াকি শহরে অষ্টম প্যাসিফিক আইল্যান্ডস লিডারস সামিটটি অনুষ্ঠিত হয়।
এবছর জাপানসহ ১৭টি দেশ সামিট মিটিং এ অংশ নিয়ে থাকে।

দেশগুলো হচ্ছে জাপান, অস্ট্রেলিয়া, কুক আইল্যান্ডস, ফেদারেট স্টেটস অফ মাইক্রোনেশিয়া, ফিজি, ক্রিবতি, রিপাবলিক অফ মার্শাল আইল্যান্ডস, নাউরু, নিউজিল্যান্ড, পালাউ, নিউয়ে, পাপুয়া নিউগিনি, সামোয়া, সলোমন আইল্যান্ডস, টোংগা, টুভালু এবং ভানুয়াতু।

সংবর্ধনা আয়োজনে জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কোনো তারো স্বাগতিক ও শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন। এছাড়াও অতিথিদের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন রিপাবলিক অফ ফিজির প্রধানমন্ত্রী ফ্রাঙ্ক বাইনিমারামা।

২০১৯ সালে অনুষ্ঠিতব্য বিশ্বকাপ রাগবী টুর্নামেন্ট এর বিশদ তুলে ধরা হয় সংবর্ধনা আয়োজনে। এর মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন গ্রুপ এর তালিকা, সময়সূচি, আয়োজনস্থল এবং সংশ্লিষ্ট অন্যান্য বিষয়াদি।

কানতো এলাকার ৪টি স্টেডিয়ামসহ মোট ১২টি স্টেডিয়ামে এই টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ থেকে।
স্টেডিয়ামগুলো হচ্ছে, টোকিও স্টেডিয়াম-টোকিও, কুমাগায়া রাগবী স্টেডিয়াম-সাইতামা, অগাসায়ামা স্পোর্টস পার্ক একোপা স্টেডিয়াম-শিযুওকা, ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়াম ইয়োকোহামা-কানাগাওয়া, সাপ্পোরো ডোম-হোক্কাইদো, কামাইশি রিকভারি মেমোরিয়াল স্টেডিয়াম-ইওয়াতে, হানাযোনো রাগবী স্টেডিয়াম-ওসাকা, অইতা স্টেডিয়াম-অইতা, কোবে মিসাকি স্টেডিয়াম-হিয়োগো, ফুকুওকা হাকাতানোমোরি স্টেডিয়াম-ফুকুওকা, সিটি অফ টয়োটা স্টেডিয়াম-আইচি এবং কুমামোতো স্টেডিয়াম- কুমামোতো প্রদেশ।

উদ্বোধনী ম্যাচটিতে জাপান মুখোমুখি হবে রাশিয়ার। স্থানীয় সময় ১৯.৪৫ থেকে টোকিও স্টেডিয়ামে খেলাটি অনুষ্ঠিত হবে। একই স্থানে ১৯ অক্টোবর ২য় কোয়ার্টার ফাইনাল এবং ২০ অক্টোবর ৪র্থ কোয়ার্টার ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে। ১ নভেম্বর ২০১৯, টোকিও স্টেডিয়াম, টোকিওতে হবে তৃতীয় স্থান নির্ধারণী অর্থাৎ ব্রোঞ্জ ফাইনাল খেলাটি। আর ফাইনাল খেলা দেখতে আগ্রহীদের গুনতে হবে সর্বনিম্ন ২৫,০০০ থেকে সর্বোচ্চ এক লাখ ইয়েন পর্যন্ত। খেলাটি অনুষ্ঠিত হবে ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়াম ইয়োকোহামা-কানাগাওয়া প্রদেশে ২ নভেম্বর শনিবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে।

প্রথম সেমিফাইনাল, দ্বিতীয় সেমিফাইনাল এবং ফাইনাল ম্যাচটি হবে ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়াম ইয়োকোহামা তে যথাক্রমে ২৬ অক্টোবর, ২৭ অক্টোবর এবং ২ নভেম্বর ২০১৯ ফাইনাল খেলার মাধ্যমে আসরের যবনিকাপাত ঘটবে।

৪টি পুল এ ভাগ হয়ে মোট ২০টি দেশ রাগবি বিশ্বকাপ ২০১৯ প্রতিযোগিতায় অংশ নিবে। এর মধ্যে পুল-এ তে রয়েছে আয়ারল্যান্ড, স্কটল্যান্ড, জাপান, রাশিয়া এবং ইউরোপ ও ওশেনিয়া প্লে অফ বিজয়ী, পুল-বি-তে রয়েছে নিউজিল্যান্ড, সাউথ আফ্রিকা, ইটালি, আফ্রিকা ১ এবং জঊচঊঈঐঅএঊ বিজয়ী, পুল-সি তে রয়েছে ইংল্যান্ড, ফ্রান্স, আর্জেন্টিনা, ইউএসএ এবং টোংগা, পুল-ডি তে রয়েছে অস্ট্রেলিয়া, ওয়ালেস, জর্জিয়া, ফিজি এবং উরুগুয়ে।
সংবর্ধনা আয়োজনে ২০২৫ সালে অনুষ্ঠিতব্য ওয়ার্ল্ড এক্সপো আয়োজক শহর হিসেবে আগ্রহী ওসাকা কে পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়। নামকরণ করা হয় “ওসাকা কানসাই এক্সপো ২০২৫”।

এছাড়াও ওয়ার্ল্ড এক্সপো ২০২৫ আয়োজন করতে ইচ্ছুক অন্য ৩টি শহর হচ্ছে একারতেরিংবার্গ- রাশিয়া, বাকু-আজারবাইজান এবং প্যারিস-ফ্রান্স।
২০২৫ সালে ওয়ার্ল্ড এক্সপো ৩ মে শুরু হবে এবং ৩ নভেম্বর তা শেষ হবে।

২০০৫ সালে জাপানের আইচি প্রদেশের নাগোয়া ওয়ার্ল্ড এক্সপো সফলভাবে সম্পন্ন করতে পারায় স্বাভাবিকভাবেই ওসাকা এখন শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী।
ইতোমধ্যে ওসাকা ২৯৮টি শহরের সমর্থন আদায়ে সমর্থ হয়েছে।

ফ্রান্স ও রাশিয়া আনুষ্ঠানিক বাংলাদেশের সমর্থন চাইলেও ওসাকা এখনও পর্যন্ত ঢাকার সমর্থন আনুষ্ঠানিক চায়নি। তবে, সংবর্ধনা আয়োজনে এই প্রতিবেদক একজন বাংলাদেশি জানতে পেরে ওসাকার সমর্থনে কাজ করার অনুরোধ জানান মেয়র হিরোফুমি ইয়োশিমুরা।

এছাড়াও সংবর্ধনা আয়োজনে ২০১১ সালের ১১ মার্চ জাপানে স্মরণকালের ভয়াবহ ভূমিকম্প এবং এর ফলে সৃষ্ট সুনামিতে যে ৩টি প্রদেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল (মিয়াগি, ফুকুশিমা এবং ইওয়াতে) তার ইওয়াতে ছিল অন্যতম। তাৎক্ষণিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল ইওয়াতে প্রদেশের কেসেননুমা। ভেঙে গিয়েছিল সব ধরনের অবকাঠামো। তার মধ্যে আবার যোগাযোগ ব্যবস্থার নাজুক পরিস্থিতির কারণে রাজধানী টোকিও সহ সকল প্রদেশের সাথেই যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন ছিল দীর্ঘদিন।

সবকিছুই সামাল দিয়ে সেই ইওয়াতে প্রদেশে মাত্র ৮ বছরের ব্যবধানে কামাইশি রিকভারি মেমোরিয়াল স্টেডিয়ামে ২০১৯ সালে অনুষ্ঠিতব্য বিশ্বকাপ রাগবী টুর্নামেন্ট এর ২টি খেলার আয়োজন (২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ফিজি এবং উরুগুয়ে ও ১৩ অক্টোবর আফ্রিকা ১ এবং জঊচঊঈঐঅএঊ এর মধ্যে) বিশ্ববাসীর জন্য রীতিমতো বিস্ময়েরও।

জাপান বলেই যে সম্ভব তা প্রমাণ করতে চলেছে জাপান।
rahmanmoni@kym.biglobe.ne.jp

সাপ্তাহিক

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

w

Connecting to %s

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.