চুরির অপবাদ সইতে না পেরে শ্রীনগরে কীটনাশক পানে যুবকের আত্মহত্যা!

শ্রীনগরে সালিশ-বৈঠকে মিথ্যা চুরির অপবাদ দেওয়ায় এক যুবক কীটনাশক পান করে আত্মহত্যা করেছে । গত বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার ষোলঘর ইউনিয়নের খৈয়াগাঁও এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এলাকাবাসি জানান, খৈয়াগাঁও গ্রামের কাঠ মিস্ত্রী আনোয়ার শেখের ছেলে মিশুন শেখ (২৮)।

স্থানীয় ডিলার আব্দুর রাজ্জাকের তাসমিয়া কসমেটিকস এন্ড টয়লেট্রিজ লিঃ এর এস.আর পদে কাজ করত। গত বুধবার বিকেলে মিশুন কোম্পানির ডিলার আব্দুর রাজ্জাকের কাছে পাওনা টাকা চাইতে গেলে সাথে ঝগড়া হয়। এ সময় রাজ্জাক ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেয়।

পরদিন আব্দুর রাজ্জাক স্থানীয় সালিশ পার্টি ও পাশ^বর্তি এলাকার ইউপি সদস্যকে ম্যানেজ করে মিশুনের বিরুদ্ধে চুরির অপবাদ এনে গ্রাম্য সালিস বৈঠক বসায়। এ সময় সালিশদাররা মিশুনের কথা না শুনে উল্টো গোডাউনের রক্ষিত মালামাল চুরির অপরাধ এনে এক তরফা ভাবে তার বিরুদ্ধে ২লক্ষ ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করে।

মিশুন উক্ত টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে ডিলার রাজ্জাক ও তার সাংগপাংগরা বলে ২৪ ঘন্টার মধ্যে টাকা পরিশোধ না করিলে ঘর দরজা অন্যত্র বিক্রি করে টাকা আদায় করে নিব। এ দিকে মিথ্যা চুরির অপবাদ সহ্য করতে না পেরে মিশুন কিটনাশক পান করে। তাৎক্ষনিক তার আতœীয় স্বজনরা তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে দ্রুত ঢাকা মিডফোর্ড হাসপাতালে প্রেরণ করেন। ঢাকা মিডফোর্ড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু বরণ করেন। পরে তার লাশ শুক্রবার রাত ৯ টার দিকে দাফন করা হয়।

মিশুনের স্ত্রী ফাতেমা জানায়, শ্রীনগর শাখার ডিলার একই গ্রামের সিদ্দিকের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক। তাসমিয়া কসমেটিকস লিমিটেডে এস.আর হিসেবে প্রায় ২ বছর ধরে কাজ করে আসছিলেন আমার স্বামী। কয়েকদিন আগে কসমেটিক ডিলার রাজ্জাক কিছু নতুন পণ্য ক্রয়ের জন্য মিশুনকে তার স্ত্রী ফাতেমার মাধ্যমে ব্রাক থেকে ২ লক্ষ টাকা ঋণ উত্তোলন করে দিতে বলে। পরবর্তীতে প্রতি সপ্তাহে ১৫’শত টাকা রাজ্জাক কিস্তি চালাবে এ শর্তে ফাতেমা প্রশিকা থেকে ৫০ হাজার টাকা কিস্তি উঠিয়ে দেয়।

গত বুধবার মিশুন কিস্তির টাকার জন্য রাজ্জাকের কসমিটিকের গোডাউনে গেলে রাজ্জাক জানায়, কসমেটিকের জন্য আগামী কাল ২ লক্ষ টাকা ব্যাংকের মাধ্যমে ডিডি করা হয়েছে এখন তার কাছে কোন টাকা নেই। গোডাউন পরিস্কারর করার পর একটা ব্যবস্থা করছি বলে রাজ্জাক জানায়। মিশুন কিস্তির টাকা জোগার করার জন্য হন্নে হয়ে ঘুরতে থাকে। এ দিকে ডিলার রাজ্জাক এলাকায় এসে প্রচার করতে থাকে গোডাউন হতে মিশুন ২ লক্ষ ৮০ হাজার টাকা চুরি করে নিয়ে গেছে।

পরবর্তিতে ডিলার রাজ্জাক গত বৃহস্পতিবার রাত ৮ টার দিকে মিশুনের বিরুদ্ধে পাশ^বর্তী বাড়ীতে এলাকার স্থানীয় ইউপি সদস্য আবুল হোসেন, সাবেক ইউপি সদস্য নুরুল ইসলাম ও হুমায়ুন, পবন, মফি, আমির হোসেন, বারেক,সাহাবুদ্দিন, মনির, পনিরসহ রাজ্জাক পক্ষের লোক জনদের নিয়ে সালিশ বসায়।

মিশুন মিথ্যা চুরির অপবাদের সিদ্ধান্ত সইতে না পেরে কান্নায় ভেঙ্গে পরেন। সালিশ বৈঠকের সিদ্ধান্তের লোক লজ্জায় ঐদিনই রাত আনুমানিক ১০টার দিকে মিশুন মন কষ্টে কীট নাশক পান করে মিশুনের স্ত্রী ফাতেমা কান্নারত কন্ঠে বলেন, ডিলার রাজ্জাককে কসমেটিকস পণ্য আনার জন্য ২ লক্ষ টাকা না দেওয়ায় ও পূর্বের কিস্তির ৫০ হাজার টাকা যাতে আর ফেরত না দিতে হয়। সেই জন্যই সালিশ বৈঠকে ষড়যন্ত করে মিথ্যা চুরির নাটক সাজিয়ে আমার স্বামীকে মেরে ফেললো।

আমি আমার এতিম ৩ বৎসরের সন্তান রিদুয়ানকে নিয়ে কোথায় দাড়াবো। এই বিষয়ে শ্রীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ ইউনুচ আলীর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ ব্যাপারের এখনও কেউ কোন অভিযোগ করেনি, অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইন গত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

মুন্সিগঞ্জ নিউজ

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.