পদ্মা সেতুতে বসল আটটি রেলওয়ে স্ল্যাব

পদ্মা সেতুতে পরীক্ষামূলকভাবে রেলওয়ে স্ল্যাব বসানো শুরু হয়েছে। গতকাল সকাল থেকে রেলওয়ে স্ল্যাব বসানোর ট্রায়াল দেওয়া শুরু হয়। ট্রায়াল সফল হলে শিগগিরই স্থায়ীভাবে স্ল্যাব বসানো হবে। এরই মধ্যে আটটি স্ল্যাব বসানো হয়েছে। সেতু প্রকল্পের মাওয়া কন্সট্রাকশন ইয়ার্ডে বেশ কিছু স্ল্যাবতৈরির কাজও শেষ হয়েছে। পদ্মা সেতুর একাধিক প্রকৌশলী এই তথ্য জানান।

প্রকৌশলীরা জানান, পদ্মা সেতুর স্প্যানে (সুপার স্ট্রাকচার) রেলওয়ে স্ল্যাব বসানো হবে। জাজিরা প্রান্তে ৭এফ স্প্যানের ওপর প্রথম সেকশনে স্ল্যাব বসানোর ট্রায়াল দিচ্ছেন প্রকৌশলীরা। এর আগে মাওয়া থেকে স্ল্যাবগুলো জাজিরা প্রান্তে নিয়ে আসা হয়েছে। প্রকৌশলী জানান, স্ল্যাবগুলো যদি সফলভাবে বসানো যায় তাহলে আর সরানো হবে না। যদিও ট্রায়ালের কথা বলা হচ্ছে। আর যদি কোনো সমস্যা দেখা দেয় তাহলে আবার ভিন্ন উপায়ে স্ল্যাব বসানোর চেষ্টা করা হবে।

সূত্রে জানা যায়, ৪১ ও ৪২ নম্বর পিলারের মধ্যবর্তী ৭এফ স্প্যানের ওপর এসব রেলওয়ে স্ল্যাব বসানো হচ্ছে। মাওয়া থেকে জাজিরা পৌঁছাতে সময় লাগে একদিন। এসব স্ল্যাবের ওজন আট টন হয়ে থাকে। এছাড়া দৈর্ঘ্য দুই মিটার এবং প্রস্থ পাঁচ দশমিক ১৫ মিটার। মাওয়া প্রান্তে প্রায় সাতশ’র বেশি স্ল্যাব প্রস্তুত আছে। জাজিরা প্রান্তে এখন যে ছয়টি পিলারে পাঁচটি স্প্যান বসানো হয়েছে তাতে রেলওয়ে স্ল্যাব বসানো হচ্ছে। এদিকে সেতুর পিলারের ওপর এ বছর আর কোনো স্প্যান বসানো হবে না বলে জানা গেছে। এ পর্যন্ত সেতুর ৩৭, ৩৮, ৩৯, ৪০, ৪১ ও ৪২ নম্বর পিলারের ওপর পাঁচটি স্প্যান বসানোর মাধ্যমে জাজিরা প্রান্তে পৌনে এক কিলোমিটার কাঠামো দৃশ্যমান হয়েছে।

উল্লেখ্য, সেতুর ২৯, ৩০, ৩১, ৩২ নম্বর পিলারের নকশা চূড়ান্ত অনুমোদন হয়েছে। বাকি সাতটি পিলারের নকশা এখনও চূড়ান্ত হয়নি। সেতুর ৩৭, ৩৮, ৩৯, ৪০, ৪১ ও ৪২ নম্বর পিলারের ওপর পাঁচটি স্প্যান বসানোর মাধ্যমে জাজিরা প্রান্তে সেতুর পৌনে এক কিলোমিটার কাঠামো দৃশ্যমান হয়েছে। ২০১৫ সালের ডিসেম্বরে সেতুর কাজ শুরু হয়। ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর বসানো হয় প্রথম স্প্যানটি। এর প্রায় চার মাস পর চলতি বছরের ২৮ জানুয়ারি দ্বিতীয় স্প্যানটি বসে। এর মাত্র দেড় মাস পর ১১ মার্চ শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্তে ধূসর রঙের তৃতীয় স্প্যান বসানো হয়। এর দুই মাস পর ১৩ মে বসে চতুর্থ স্প্যান। আর পঞ্চম স্প্যানটি বসে এর এক মাস ১৬ দিনের মাথায়। ছয় দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এ সেতুতে ৪২টি পিলারের ওপর বসবে ৪১টি স্প্যান। পদ্মা বহুমুখী সেতুর মূল আকৃতি হবে দোতলা। কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মিত হচ্ছে এ সেতুর কাঠামো।

শেয়ার বিজ

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.