মাওয়ায় দৃশ্যমান পদ্মা সেতুর ১৫০ মিটার

বসল ষষ্ঠ স্প্যান
মীর নাসিরউদ্দিন উজ্জ্বল, মুন্সীগঞ্জ ॥ বৈরী আবহাওয়া উপেক্ষা করে মাওয়ায় উঠছে পদ্মা সেতুর নতুন স্প্যান। এই স্প্যান ওঠার মধ্য দিয়ে প্রথমবারের মতো মাওয়া প্রান্তে দৃশ্যমান হলো পদ্মা সেতু। মাওয়া প্রান্তে এই প্রথম সেতুর ১৫০ মিটার দৃশ্যমান হলো। শুক্রবার সকালে মাওয়ার ৪ ও ৫ নম্বর খুঁটির ওপর পদ্মা সেতুর ধূসর রঙের ষষ্ঠ স্প্যান বসিয়ে দেয়া হয়। এর আগে বুধবার সকাল ১০টায় স্প্যান খুঁটির কাছে এসে পৌঁছায়। কুমারভোগের বিশেষায়িত ওয়ার্কশপ থেকে ‘১এফ’ নাম্বার স্প্যান ৩৬শ’ টন ক্ষমতার ভাসমান ক্রেনের সঙ্গে সেট করা হয়। সকাল সাড়ে নয়টায় স্প্যান নিয়ে জাহাজ রওনা হয়। পরে খুঁটির সামনে এসে জাহাজ নোঙ্গর করে। কিন্তু বৈরী আবহাওয়াসহ নানা কারণে স্প্যান সেদিন খুঁটির ওপরে ওঠানো হয়নি। এমনকি বৃহস্পতিবারও স্প্যান খুঁটির ওপর বসানো যায়নি। এই স্প্যান মাওয়া প্রান্তের ৬ ও ৭ নম্বর খুঁটির ওপর বসানোর কথা ছিল। কিন্তু খুঁটি দুটি প্রস্তুত না হওয়ায় এবং কুমারভোগের বিশেষায়িত ওয়ার্কশপে জায়গা না থাকার কারণে এই স্প্যান অস্থায়ীভাবে ৪ ও ৫ নং খুঁটির ওপর বসানো হচ্ছে।

কারণ ১ নং মডিউলের এই খুঁটি দুটি এখনও সম্পন্ন হয়নি। অথচ সর্বপ্রথম এই খুঁটি দুটিরই কাজ শুরু হয়েছিল। সেই অনুযায়ী চীন থেকে সর্বপ্রথম ‘১এফ’ স্প্যানটি বাংলাদেশে এসেছিল। নদীর তলদেশে মাটি নরম থাকার কারণে এই খুঁটির নক্সা পরিবর্তন করতে হয়েছে। নতুন নক্সা অনুযায়ী অন্য সাত খুঁটির মতো এই দুটি খুঁটিতেও খাঁজকাটা (ট্যাম) পাইল বসবে। আর ২২ খুঁটির মতো এই খুঁটিতেও সাত পাইল বসবে। তাই এখনও খুঁটি দুটি সম্পন্ন হয়নি। ২০১৫ সালের ১২ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই সাত নম্বর খুঁটিতেই পাইল স্থাপনের কাজ শুরুর মধ্য দিয়ে মূল সেতুর কাজের উদ্বোধন করেছিলেন। পরবর্তী সময়ে ছয় নং খুঁটিতেও পাইল স্থাপন শুরু হয়। পরে ৬ ও ৭ নং খুঁটিতে তিনটি করে পাইল স্থাপনের পর পরবর্তী ধাপের কাজ শুরু করতে গিয়ে মাটির তলদেশে নরম মাটি ধরা পড়ে। পরবর্তী সময় দীর্ঘ পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে নক্সায় পরিবর্তন আনা হয়।

জনকন্ঠ

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.